ধনতেরাসের দিন বাড়িতে ঝাঁটা কিনলে সুখ-সমৃদ্ধি বাড়ে বহুগুণ, কারণটা জানেন?

By: Sourish Das

November 1, 2021

Share

চিত্রঋণ : Google

ভূত চতুর্দশীর ঠিক একদিন আগে অর্থাৎ কার্তিক মাসের কৃষ্ণপক্ষের ত্রয়োদশী তিথিতে সারা ভারতে পালিত হয় ধনতেরাস। পশ্চিমবঙ্গে এই দিনটি ধন ত্রয়োদশী নামেও পরিচিত। চলতি বছরে ২ নভেম্বর পালিত হতে চলেছে ধনতেরাস। প্রচলিত মত অনুযায়ী, এই ধনতেরাসের দিন বাড়িতে কিছু একটা জিনিস নতুন আনতে হয়। সে সোনার গয়না হোক, কিংবা রুপো কিংবা নতুন বাসনপত্র। এদিন সকলেই কিছু না কিছু একটা কেনাকাটা করে থাকেন এবং বাড়িতে নিয়ে আসেন কোন একটা নতুন জিনিস। প্রচলিত মত অনুযায়ী সোনা রুপা এবং বাসন ক্রয় করা শুভ হলেও, আরো একটা জিনিস রয়েছে যা এই ধনতেরাসের দিন আপনার বাড়িতে সুখ-সমৃদ্ধি নিয়ে আসে।

 

সেই জিনিসটার নাম হল ঝাঁটা। প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী, এই ধনতেরাসের দিন যদি আপনি বাড়িতে কোন নতুন ঝাঁটা নিয়ে আসেন তাহলে আপনার সুখ-সমৃদ্ধি আরো দ্বিগুন হয়ে যাবে। কিন্তু, ঝাঁটা কেনার আসল কারন জানেন? উল্লেখ রয়েছে, ধনতেরাসের দিন ঝাঁটা কেনা অত্যন্ত শুভ কারণ ঝাঁটা হল মা লক্ষ্মীর প্রতীক। যদি আপনি বাড়িতে ঝাঁটা নিয়ে আসেন ধনতেরাসের দিন তাহলে মা লক্ষ্মী আপনার ঘরে আসবে। পাশাপাশি আপনার আর্থিক সমস্যা থেকে আপনি মুক্তি পাবেন। তবে, এই ঝাঁটা কেনার আরো কিছু কারণ রয়েছে, চলুন জেনে নেওয়া যাক বিস্তারে।

প্রথম কারণটাই হলো, ঝাঁটাকে অত্যন্ত শুভ মনে করা হয় কারণ মৎস্য পুরাণ অনুযায়ী ঝাঁটায় নাকি লক্ষ্মীর বাস। মনে করা হয় ধনতেরাসের দিন যদি আপনি ঝাঁটা কেনেন তাহলে বাড়িতে লক্ষ্মীর আগমন ঘটে এবং আর্থিক সমস্যায় দিন কাটালে আপনি লাভবান হতে পারেন। লক্ষ্মী আপনার উপর প্রসন্ন হবে যদি আপনি ঝাঁটা কিনে আনেন বাড়িতে ঠিক এই দিন।

দ্বিতীয়ত, ধনতেরাসের দিন যদি আপনি বাড়িতে ঝাঁটা কিনে আনেন তাহলে বাড়িতে নেতিবাচক শক্তির প্রভাব দূর হয় এবং ইতিবাচক শক্তির সঞ্চার হয়ে থাকে। ঝাঁটা বাড়ির দারিদ্র্যকে বিদায় করে বাড়িতে সুখ-সমৃদ্ধি নিয়ে আসে। তার সাথে সাথেই, মনে করা হয় ঝাঁটা যদি আপনি বাড়িতে আনেন তাহলে ঝাঁটার সাথে বাড়িতে অর্থ আগমন ঘটে। ধনতেরাসে ঝাঁটা কেনা অত্যন্ত শুভ মনে করা হয়।

তৃতীয়ত, যদি আপনি ধনতেরাসের দিন ঝাঁটা কিনেন তাহলে অবশ্যই সেই ঝাঁটার উপরে একটি সাদা সুতো বেঁধে দেবেন। এটা করলে আপনার আর্থিক স্থায়িত্ব বজায় থাকবে বলে মনে করা হয়।

চতুর্থত, এদিন যদি আপনি বাড়িতে কোন ঝাঁটা কিনে আনেন, তাহলে সেটাকে সব সময় মাটিতে শুইয়ে রাখবেন এবং বাড়ির কোন একটা কোণে লুকিয়ে রাখবেন। ঝাঁটা কখনো দাঁড় করিয়ে রাখবেন না তাহলে আপনার বাড়িতে অশুভ শক্তির আগমন ঘটে। সাথে সাথেই আপনার বাড়ির ঝাঁটা যদি বাইরের মানুষ দেখতে পায়, তাহলে সেটা অত্যন্ত অশুভ মনে করা হয়।

পঞ্চমত, ঝাঁটায় কখনো স্বেচ্ছায় পা দেবেন না। যেহেতু ঝাঁটায় লক্ষ্মীর বাস থাকে মনে করা হয়, তাই যদি আপনি স্বেচ্ছায় ঝাঁটায় পা দেন তাহলে মনে করা হয় এতে লক্ষ্মী রুষ্ট হন। 

ষষ্ঠত, দীপাবলির দিন মন্দিরে ঝাঁটা দান করার প্রথা প্রচলিত রয়েছে। তবে দীপাবলীর দিন যদি আপনি মন্দিরে ঝাঁটা দান করেন তাহলে সেই ঝাঁটা অবশ্যই ধনতেরাসের দিন কিনবেন। নতুবা আপনি তেমন কোনো লাভ পাবেন না।

সপ্তমতঃ, বাড়িতে ঝাঁটা কখনো উল্টো করে রাখবেন না, তাহলে আপনার বাড়িতে কলহ বৃদ্ধি পাবে।

অষ্টমত, বাড়ি থেকে বাইরে কিংবা বাড়ির ছাদে ঝাঁটা রাখবেন না। প্রচলিত মত অনুসারে, যদি আপনি এরকম করেন তাহলে বাড়িতে চুরির আশঙ্কা থাকে।

ধনতেরাসের দিন বাড়িতে ঝাঁটা নিয়ে আসার শুভ বিষয়গুলি তো আলোচনা হল। কিন্তু, এই দিন কোন ঝাঁটা কিনবেন না কিনবেন, সেটা নিয়েও আলোচনা করা দরকার। জানিয়ে রাখি, বাজারে অনেক ধরনের ঝাঁটা পাওয়া গেলেও সব ধরনের ঝাঁটা কিনে আনবেন না। বিশেষ করে প্লাস্টিকের ঝাঁটা কিনবেন না, কারণ মনে করা হয়, প্লাস্টিক খুব একটা শুভ জিনিস না। তাই, যদি ধনতেরাসের দিন আপনাকে বাড়িতে ঝাঁটা কিনতে হয় তাহলে অবশ্যই সিকের ঝাঁটা কিনবেন অথবা ফুলঝাড়ু কিনবেন। শিকের ঝাঁটা হলো মূলত নারকেল গাছের পাতার কাঠি দিয়ে তৈরি করা ঝাঁটা। আর ফুলঝাড়ু হলো খেজুর ঘাস দিয়ে তৈরি নরম ঝাঁটা, যা দেখতে অনেকটা প্রাণীর লেজের আকৃতির হয়ে থাকে। 

তবে মনে করা হয় ঝাঁটা যত ঘন হবে তার ইতিবাচক প্রভাব তত বেশি হবে। তাই ভুল করেও কোনো হালকা ঝাঁটা কিনে আনবেন না। আবার যদি শিকের ঝাঁটা কেনেন তাহলে লক্ষ্য রাখবেন তার শিক যেন কোনভাবে ভাঙ্গা না থাকে। কারণ মনে করা হয়, যদি এই ধরনের কাঠি নির্মিত ঝাঁটা বা শিকের ঝাঁটার কাঠি ভাঙা থাকে তাহলে সেই ঝাঁটা খন্ডিত ঝাঁটা হয়ে যায়, আর সেই ধরণের ঝাঁটা অত্যন্ত অশুভ। 

তবে, শুধুমাত্র ঝাঁটাই নয়, ধনতেরাসের দিন যদি আপনার বাজেট কম থাকে, তাহলে আপনি সোনা রুপোর পরিবর্তে আরো বেশ কিছু জিনিস কিনতে পারেন যা আপনার বাড়িতে সুখ এবং সমৃদ্ধি নিয়ে আসবে। সেই সমস্ত জিনিস গুলির মধ্যে অন্যতম হলো ধনের বীজ। তবে ধনের বীজ আপনি নিয়ে আসেন, তাহলে আপনাকে মনে রাখতে হবে পুজোর সময় মা লক্ষীকে এই ধনে বীজ অর্পণ করে সেটাকে সিন্দুকে রেখে দিতে হবে। 

তার পাশাপাশি আপনার ব্যবসা সংক্রান্ত পণ্য, লেখক এবং পড়ুয়াদের ক্ষেত্রে পেন, বইপত্র, শিল্পীর ক্ষেত্রে তুলি, যে কোন ইলেকট্রনিক্স জিনিস যেমন ফ্রিজ, টিভি, মোবাইল ফোন, ১১টি গোমতী চক্র এবং পিতলের বাসন পত্র কিনতে পারেন। তবে হ্যাঁ, বাসন কিনলে পিতলের বাসন ছাড়া কোন ধাতুর বাসন কিনবেন না। এবং সেই পিতলের বাসন কিনে সেটাকে বাড়ির উত্তর-পূর্ব কিংবা অন্তত পূর্বদিকে আপনাকে রাখতে হবে। তাহলে আপনার বাড়িতে মা লক্ষ্মী আগমন ঘটবে এই ধনতেরাসের দিন।

তথ্যসূত্র:

  • https://www.naidunia.com/spiritual/vrat-tyohar-dhanteras-2021-buy-these-things-with-a-broom-on-dhanteras-you-will-get-auspicious-results-on-diwali-7119488

More Articles

error: Content is protected !!